Share on social media

ভোলা-লক্ষ্মীপুর মহাসড়কের ভোলা উপজেলার ইলিশা এলাকায় যাত্রীবাহী বাস ও সিএনজির মুখোমুখি সংঘর্ষে ২ জন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় গুরুতর আহত হয়েছেন ৪ জন। তাদেরকে ভোলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আজ সোমবার সকাল ১০টার দিকে ভোলা সদর উপজেলার ইলিশা ব্যারিস্টারের কাচারি এলাকায় যাত্রীবাহী বাসের সাথে সিএনজির মুখোমুখি সংঘর্ষে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এসময় স্থানীয় উত্তেজিত জনতা বাসটি ভাঙচুর করে আগুন লাগিয়ে দেয়। পরে পুলিশ ও ফায়ারসার্ভিস কর্মীরা ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সকালে বাস মালিক সমিতির একটি যাত্রীবাহী বাস চরফ্যাসন থেকে ভোলার ইলিশা ফেরিঘাটে যাচ্ছিল। বাসটি ভোলা লক্ষ্মীপুর মহাসড়কের ব্যারিস্টারের কাচারি এলাকায় এলে বিপরীত দিক থেকে আসা সিএনজির সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষ ঘটে। এতে ঘটনাস্থলেই মাজহারুল ইসলাম জসিম (৪৫)-সহ ২ জন নিহত হন। নিহত মাজহারুল ইসলাম জসিম সদর উপজেলা চর সিতারাম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক। অপর নিহতের নাম-পরিচয় প্রাথমিকভাবে পাওয়া যায়নি।

তাৎক্ষণিক স্থানীয়রা আশঙ্কাজনক অবস্থায় ৪ জনকে উদ্ধার করে ভোলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। আহত ২ জন হচ্ছেন আবুল কালাম বাচ্চু (৫৫) এবং তামান্না (১৮)। অপর আহতের নাম পরিচয় পাওয়া যায়নি। এদিকে, এ ঘটনার পর উত্তেজিত জনতা সড়ক অবরোধ করে দুর্ঘটনা কবলিত বাসে আগুন লাগিয়ে দেয়। পরে ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। এসময় উত্তেজিত জনতা আরও ২টি যাত্রীবাহী বাসে ভাংচুর চালায়।

দুর্ঘটনার পরপর সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মিজানুর রহমান এবং ভোলা থানার ওসি তদন্ত আরমান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। এ সময় ওসি আরমান জানান, দুর্ঘটনায় ২ জন পুরুষ নিহত এবং ৪ জন আহত হয়েছে। আহতদের মধ্যে এক নারীর অবস্থা আশঙ্কাজনক।


Share on social media

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here