Share on social media

ধর্ষণ এর আক্ষরিক অর্থ কি?

কারো ইচ্ছার বিরুদ্ধে জোর করে তার সাথে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন করা মানেই ধর্ষণ। শুধু কি পুরুষরাই ধর্ষণ করতে পারে?

ধর্ষণ যে শুধু পুরুষরাই করতে পারে আর মেয়েরা পারবে না, তা নয়। কয়েকটা মেয়ে যদি চায় তাহলে জোর করে ধরে একটা ছেলেকে ধর্ষণ করতে পারে। আসলে মেয়েরা সেটা করে না। আজ পর্যন্ত আমাদের দেশে কখনো কোথাও কি এরকম ঘটনা ঘটেছে যে একটা ছেলেকে বা একটা পুরুষকে জোর করে ধর্ষণ করা হয়েছে? অন্তত আমার তা জানা নেই।
আমি আমার এই লেখাটি দিয়ে বোঝাতে চেয়েছি যে মেয়েরাও ইচ্ছে করলে রেপ করতে পারে কিন্তু মেয়েরা সেটা করে না। এটা আমি আমাদের দেশের প্রেক্ষাপট নিয়ে লিখেছি। এই লেখাটি আমি নোংরা মানসিকতার পুরুষদের আত্মপক্ষ সমর্থনের অজুহাত বের করে দেওয়া বা সৃষ্টি করে দেওয়ার জন্য লিখিনি বরং আমি বোঝাতে চেয়েছি যে মেয়েরাও ইচ্ছে করলে সবই পারে, মেয়েদের সেই ক্ষমতা নেই তা নয় কিন্তু আমাদের দেশের মেয়েরাতো রেপের মতো জঘন্য কাজটি করে না।

মেয়েরাও যদি রেপ করা শুরু করতো তাহলে কি রেপ কমে যেতো না বেড়ে যেতো?
হয়তো রেষারেষিটা আরো বেড়ে যেতো তার মানে ধর্ষণ আরো বেড়ে যেতো। তাহলে মেয়েরা কি করবে, কিভাবে প্রোটেস্ট করা যায় সেটাই এখন ভেবে খুঁজে বের করে দেখা দরকার।

প্রতিশোধ নয়, প্রতিরোধ করার যেকোনো একটা পন্থাতো খুঁজে বের করতেই হবে ধর্ষণকে ঠেকাতে।

আমার দৃঢ় বিশ্বাস মেয়েরা যেভাবে পৃথিবীর আর সমস্ত বাধা অতিক্রম করে এতোদূর এসেছে সেভাবেই একদিন ধর্ষণের বিরুদ্ধেও প্রতিরোধের আগুন ছড়িয়ে দিবে দিকে দিকে।


Share on social media

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here